দক্ষিণ 24 পরগনা রায়দিঘি বিধানসভায় নন্দকুমার পুর গ্রাম পঞ্চায়েতের দক্ষিণ জয় কৃষ্ণপুর মৌজায় স্থানীয় ভাগ চাষীদের সরকারিভাবে তাদের কোনো পাট্টা দেয়া হয়নি ।

তাদের জমির উপর অন্য কোন নামে পাট্টা বিতরণ চলছে। সে আবার বেছে বেছে তৃণমূলের কর্মী সমর্থকদের পাট্টা দেয়া হচ্ছে।

এমনই অভিযোগ তুলে বিজেপির কর্মী-সমর্থকেরা কোম্পানির ঠেক বি,এল ,আর, ও অফিসের সামনে বিক্ষোভ কর্মসূচি গ্রহণ করেন। এই কর্মসূচিতে বিক্ষোভ বিজেপির কর্মী-সমর্থকদের | তারা নিজেরাই ভাগচাষী বলে উল্লেখ করেন।

এমন এক ভাগ চাষীর পশুপতি ময়রা বলেন যে আমাদের পূর্বপুরুষের একই জমিতে চাষ করে আসছেন । পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যখন ঘোষণা করে নিজ ভূমি ,নিজ গৃহ প্রকল্পের আওতায় আমাদের কোন নাম নেই আমাদের জমি গুলি তৃণমূল কর্মী সমর্থকদের নাম।

এই নিয়ে আমরা সমস্ত ভাগ চাষীরা একত্রিত হয়ে আজ ডেপুটেশন দিলাম বি এল আর অফিসের। মথুরাপুর সাংগঠনিক জেলা বিজেপির কিষান মোর্চার সহ সভাপতি প্রদ্যুৎ বৈদ্য বলেন শিশুদের খাদ্যসামগ্রী থেকে আমফানের চাল চুরি।

অবার করুণা তথ্য লুকানোর এই সরকারের দ্বারা সম্ভব।আবার সাধারণ মানুষের নিজের ভূমি সেটুকুও তৃণমূল সরকারের কর্মীদের নামে লিখে নিতে ব্যস্ত।

তৃণমূল নামক শব্দটা 2021 এর পর থেকে ধুয়ে মুছে সাফ হয়ে যাবে। শুধু মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়ে মানুষের মন জয় করতে পারবে না। মানুষ বুঝে গিয়েছে তৃণমূল সরকার নামক এক কোম্পানির যার মালিক হচ্ছে পিসি ভাইপো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here