ধর্মীয় বেড়াজাল টপকে কাঞ্চন তলা কল্যাণ মন্দির বারাসাতের পীঠস্থান। ফলাহারিনি অমাবস্যা বিহীত শ্রী শ্রী মায়ের বিশেষ পূজা অর্চনা ও যজ্ঞ আরতি করা হয়।

শুধু ধর্মের বেড়াজালে আটকে নেই। ভারতীয় সংস্কৃতিতে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে আছে এই ফলহারিণী অমাবস্যা!ধর্মীয় আচার পালনের পীঠস্থান কাঞ্চনতলা কল্যান মন্দিরে অমাবস্যার শুভ লগ্নে প্রতি বছরের মতো এ বছরও পালিত হল ধুমধাম করে ফলহারিনি অমাবস্যা র পূজা অর্চনা।

বর্তমান করোনা পরিস্থিতির কারণে মন্দির কমিটির পক্ষ থেকে জনসমাগম নিষিদ্ধ করা হয়। এছাড়াও ভক্তদের জন্য মন্দির এর সেবায়েত শ্রী শঙ্খ চ্যাটার্জী অনলাইনে পূজা দেওয়ার ব্যবস্থা করেন।

বলা ভালো রীতি মেনে বারাসাত বাদু বাজার কাঞ্চন তলা কল্যাণ মন্দিরে স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব মেনে পূজা হয় নিজস্ব আঙ্গিকে। মন্দিরের সেবায়েত শ্রী শঙ্খ চ্যাটার্জ্জী ভক্তদের মনস্কামনা শুভ কামনায় পূজা পাঠ ও মঙ্গল যোগ্যতি করেন।

কিংবদন্তি ধর্মপীঠ বাবা ভোলানাথ ভীষণ জাগ্রত, মনস্কামনা পূর্ণ করার আদর্শ স্থান হল কল্যান মন্দির। অতি নিষ্ঠা ভরে সেবায়েত শঙ্খ চট্টপাধ্যায় পূজা এবং যজ্ঞাদি সম্পন্ন করেন।

মূল সেবায়েত বংশানুক্রমে পরম্পরা মেনে যে পূজাদি করেন তা যেমন মনোজ্ঞ তেমন ই কল্যাণ কর। পূজা শেষে প্রসাদ গ্রহণ করেন ভক্ত বৃন্দ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here