নিজস্ব সংবাদদাতা: আবারো মনুয়া কান্ডের ছাপ গাইঘাটায়, স্বামীর দেহ উদ্ধার করা হলো প্রেমিকের খাটের নিচের মাটি খুঁড়ে। মৃত ব্যক্তির নাম রামকৃষ্ণ সরকার। কোচবিহারের বানেশ্বর পুর এলাকার বাসিন্দা।

বিয়ের পর উত্তর ২৪ পরগণার বনগাঁর বাবুপাড়া স্বামী স্ত্রী ভাড়া থাকত। বুধবার ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনার গাইঘাটা থানার গোয়ালবাতান এলাকায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, গতকাল দুপুরে গোয়ালবাথান এলাকার একটি পুকুর পাড়ে রক্ত দেখতে পারে স্থানীয়রা। খবর দেওয়া হয় গাইঘাটা থানায়। পুলিশ এবং স্থানীয়রা খোঁজাখুঁজি করে বাশ বাগান থেকে জুতো, মার্কস, টর্চ লাইট উদ্ধার করে।

পরবর্তীতে বুধবার সকালে গোয়ালবাথান এলাকার সুজিত দাস এর বাড়ির সামনে রক্ত দেখতে পেয়ে সন্দেহ হয় পুলিশের। তালা ভেঙে ঘরে ঢুকে পুলিশ দেখতে পায় খাটের নীচে খোরা। সন্দেহ হয় এখানেই কাউকে খুন করে রাখা হয়েছে। পরবর্তীতে বুধবার দুপুর নাগাদ মাটি খুঁড়ে এক ব্যক্তির ক্ষতবিক্ষত দেহ উদ্ধার করা হয়। জানা গিয়েছে মৃত ব্যক্তির নাম রামকৃষ্ণ সরকার।

কোচবিহারের বানেশ্বরপুর এলাকার বাসিন্দা। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান রামকৃষ্ণের স্ত্রী স্বপ্না সরকারের সঙ্গে সুজিতের বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্ক ছিল। নিজেদের রাস্তা পরিষ্কার করতে সুজিত ও স্বপ্না তার স্বামীকে খুন করেছে এবং সুজিতের বাড়ির খাটের নিচে মাটি খুঁড়ে পুঁতে রেখেছে। স্বপ্নাকে আটক করে ঘটনা তদন্ত শুরু করেছে গাইঘাটা থানার পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here