বাবলুপ্রামানিক, দক্ষিণ 24পরগনা : ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার দুপুরে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার ক্যানিং মহকুমা হাসপাতাল চত্বরে।জানাগেছে বিগত দশদিন আগে ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে প্রসব যন্ত্রণা নিয়ে ভর্তি হয়েছিলেন ক্যানিং থানার মাতলা ২ গ্রাম পঞ্চায়েতের আমড়াবেড়িয়া গ্রামের রাকিবা মোড়ল।তিনি একটি শিশু কন্যার জন্ম দেন।

পরে সুস্থ হয়ে গেলে ক্যানিং মহকুমা হাসপাতাল থেকে ছুটি দেওয়া হয় এই গৃহবধু কে। সোমবার সকালে শিশু কন্যাকে নিয়ে ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে এসেছিলেন এই গৃহবধু। জন্ম সার্টিফিকেট নেওয়ার জন্য শিশু কন্যা কে কোলে নিয়ে হাসপাতাল চত্বরে বসেছিলেন অপেক্ষায়।

গৃহবধু আমিনার সাথে ছিলেন তাঁর দিদিমা মদিনা সেখ।রাকিবা শিশুকন্যা কে তাঁর দিদিমার কোলে দিয়ে হাসপাতালের মধ্যে যায় জন্ম সার্টিফিকেট নেওয়ার জন্য।মদিনা বিবি শিশুকন্যা নিয়ে হাসপাতাল চত্বরে বসেছিলেন। আচমকা এক মাঝ বয়সী মহিলা এসে বন্ধুত্ব পাতায় তাঁর সাথে।

মদিনার হাতে টাকা দিয়ে প্যামপাস আনতে বলে। তিনি রাজী না হলেও জোর করে পাঠায় দোকানে।অঞ্জাত পরিচয় মহিলা মুহূর্তে চোখের পলকে শিশু কন্যা কে নিয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায় অটো করে।শিশু কন্যাকে না পেয়ে কান্না ভেঙে পড়ে এই মহিলা ও তার পরিবারের লোকজন।

ঘটনায় তুমুল শোরগোল পড়ে যায় ক্যানিং মহকুমা হাসপাতাল চত্বরে।ঘটনার খবর পেয়ে হাজীর হয় ক্যানিং থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী।অন্যদিকে ক্যানিং থানার পুলিশ রাকিবা ও তাঁর দিদিমা কে নিয়ে হাসপাতালের সিসি ক্যামেরা ফুটেজ খতিয়ে দেখে অভিযুক্ত মহিলা কে সনাক্তকরণ করার চেষ্টা শুরু করেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here