কু প্রস্তাবে সাড়া না দেওয়ায় এক গৃহবধূকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপালো এক যুবক। দিদিকে বাঁচাতে গিয়ে আক্রান্ত ভাই। দক্ষিণ 24 পরগনার বারুইপুর উত্তর পদ্মজলার ঘটনা।

সোমবার রাত সাড়ে এগারোটা নাগাদ গৃহবধূ পম্পা মন্ডল তার ছোট ছেলেকে নিয়ে ঘরের বাইরে বাথরুমে যায়। সেই সময় দেবু নামে এক যুবক আচমকাই ওই গৃহবধূর ওপর ধারালো অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়।

গৃহবধূকে এলোপাতাড়ি ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপাতে থাকে ঐ যুবক। গৃহবধূ আর্তচিৎকার করলে তার ভাই মিন্টু মন্ডল বেরিয়ে এসে দিদিকে বাঁচাতে গেলে মিন্টুর মাথায় ইট দিয়ে আঘাত করে সেই যুবক। তারপরে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায় যুবক।

গুরুতর আহত অবস্থায় গৃহবধূ ও তার ভাইকে বারুইপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে এলে গৃহবধূ পম্পা মন্ডলের আঘাত গুরুতর হওয়ায় তাকে কলকাতা চিত্তরঞ্জন হাসপাতাল রেফার করে চিকিৎসকরা।

পরিবারের অভিযোগ বারুইপুর রামনগরের বাসিন্দা দেবু নামের এক যুবক ওই গৃহবধূকে বারবার প্রেমের প্রস্তাব দেয়, এমনকি তাকে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার ও পরামর্শ দিয়েছিল সেই যুবক।

কিন্তু সেই কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়াতে আক্রোশ বসত তার ওপর প্রাণঘাতী হামলা চালায় সেই যুবক। এই ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। যুবকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে পরিবারের লোকজন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here