আজ বৃহস্পতিবার ফের রাজ্য জুড়ে লকডাউন। লকডাউন সফল করতে কলকাতা সহ জেলাতেও কড়া নজর রেখেছে প্রশাসন। চলতি মাসে আগের সপ্তাহগুলিতে

দুই দফার এই লকডাউন অবশ্য রাজ্যজুড়ে পালিত হয়েছে কঠোর ভাবেই।

 

 

কিছু লোকজন ছাড়া রাস্তায় দেখা মেলেনি অন্য লোকজনের। নিয়ম মেনে বন্ধ ছিল দোকানপাট গুলিও ।

 

বৃহস্পতিবারও সেই নিয়মের কোনও ব্যতিক্রম হবে না বলেই মনে করা হচ্ছে। বন্ধ রয়েছে সমস্ত সরকারি-বেসরকারি অফিস। বন্ধ সমস্ত দোকানপাট , বাজার

সকাল থেকে তত্‍পর পুলিশ বাহিনী।

 

হাওড়া ব্রিজেও সাতসকালে পুলিশকে কড়া নজর রাখতে দেখা গিয়েছে।চেক করা হচ্ছে রাস্তায় বেরোনো গাড়ির কাগজপত্রও।

আম্ফান দুর্নীতি তে হালিশহরের প্রশাসক অংশুমান রায়কে সরিয়ে দেওয়া হল

 

সাতসকালেই দেখা গেছে শুনশান শিলিগুড়ির রাস্তাঘাট। কার্যত বনধের মতো করেই পালন হচ্ছে লকডাউন। কলকাতা ও আশে পাশের জেলাতেও স্কুল, কলেজ, বাজার সব বন্ধ।

লকডাউন যাতে সঠিক ভাবে মানা হয় তা দেখতে বিশেষ নির্দেশ দেওয়া হয়েছে পুলিশকে।

 

 

এর আগে ২১ অগস্টে লকডাউনের নিয়ম অমান্য করায় কলকাতা পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয় প্রায় ৮০০ জন। এছাড়া আরও প্রায় ৪৫০ জনের বিরুদ্ধে নেওয়া হয়েছে আইনি ব্যবস্থা।

দেশের পাশাপাশি এরাজ্যেও অগস্টের শুরুতে করোনার প্রকোপ বৃদ্ধি পায়। তা নিয়ন্ত্রণে রাখতে প্রত্যেক সপ্তাহে দু’দিনের লকডাউন ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়।

 

সেই মতোই পালন হচ্ছে লকডাউন। করোনার চেন ভাঙতেই এমন পদক্ষেপ বলে জানানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here