কিছুদিন আগে মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেছিলেন “পাড়ায় সমাধান” প্রকল্প।সেইমত রায়গঞ্জ পৌরসভার প্রথম কাজ শুরু হল দেবীনগরের ২৬ নং ওয়ার্ডে।দেবীনগরের সাহা পাড়া এলাকায় ৪ লক্ষ ১২ হাজার ৯৭৪ টাকা খরচে পিচের এই রাস্তা নির্মাণ কাজ শুরু হল।

দীর্ঘদিন রাস্তাটি পুননির্মাণের দাবি উঠেছিলো সেই মত মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তরে অভিযোগ যায়।তারপরই মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে তড়িঘড়ি কাজ শুরু করার ব্যবস্থা করা হয় জেলাশাসক মারফৎ।

সোমবার রায়গঞ্জ পৌরসভার পৌরপতি সন্দীপ বিশ্বাস নারকেল ফাটিয়ে এই রাস্তার কাজের শুভ সূচনা করেন।উপস্থিত ছিলেন ওয়ার্ড কাউন্সিলর অভিজিৎ সাহা।

১৫ দিনের মধ্যে এই রাস্তা কাজ সম্পন্ন করা হবে বলে জানান পৌরপতি সন্দীপ বিশ্বাস।তিনি সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে জানান,”এই রাস্তার কাজটির জন্য মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তরে সারাসরি অভিযোগ জমা পড়েছিলো।

সেইমত মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী আমরা যুদ্ধকালীন পরিস্থিতিতে জেলাশাসক মারফৎ টেন্ডার পাশ করিয়ে এই রাস্তার কাজটি শুরু করলাম। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে এই রাস্তার কাজটি শেষ হবে এবং রায়গঞ্জের মানুষ এতে উপকৃত হবেন।”

“এতদিন কেন রাস্তটিকে সংস্করণ করা হলনা,কেন পৌরসভার নজরে এলো না,যে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে অভিযোগ করতে হল”, সাংবাদ মাধ্যমের এই প্রশ্ন উত্তরে পৌরপতি বলেন,”পৌরসভা জানত এই রাস্তাটির বেহাল দশার কথা।

তবে অর্থের অভাবে এই কাজটি করতে পারেনি পৌরসভা। তবে মুখ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে সেই সমস্যার সমাধান হয়েছে।”

দীর্ঘদিনের দাবি মত রাস্তার কাজ শুরু হওয়ায় খুশি এলাকাবাসীরা ।ভোটের মুখে মুখ্যমন্ত্রীর “পাড়ায় সমাধান” চালু হয়েছে।পাড়ায়, পাড়ায় মানুষের সমস্যার অভিযোগ জমা পড়ছে মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তরে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here