বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতিদের হাতে মঙ্গলকোট বিধানসভার নিগন অঞ্চলের ২৯৭ নম্বর বুথ সভাপতিকে পিটিয়ে খুন।

বর্ধমান মেডিকেল কলেজের ময়নাতদন্তের পর সেই মৃতদেহ পৌঁছাল গ্রামে।

উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিনহা, মঙ্গলকোট ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি অপূর্ব চৌধুরী, মঙ্গলকোট ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক শান্ত সরকার ও মুন্সি রেজাউল হক।

গ্রাম ঢোকার মুখ থেকে একটি তৃণমূল কংগ্রেসের শোক মিছিল হয়।

নিহত তৃণমূল কংগ্রেসের বুথ সভাপতির বাড়ি পর্যন্ত।
এছাড়া ঘটনাস্থলে মোতায়েন ছিলো মঙ্গলকোট থানার বিশাল পুলিশ বাহিনি।

মৃত তৃণমূল নেতার নাম সঞ্জিৎ ঘোষ । তিনি নিগন গ্ৰামের ১৯৭নম্বর বুথের সভাপতি ছিলেন ।


যদিও বিজেপি অভিযোগ মানতে নারাজ । বিজেপি নেতা কৃষ্ণ ঘোষ সামাগ্ৰিক ঘটনাকে তৃণমূলের গোষ্ঠী দ্বন্দ্ব বলে জানিয়েছেন ।

ঘটনার সুত্রে জানা গেছে , গত সোমবার বিজেপি নেতা সৌমিত্র খাঁ এর জনসভা ছিল ওই এলাকায়, সেখান থেকেই উস্কানিমূলক বক্তব‍্য রাখেন সৌমিত্র খাঁ ।

সেই ঘটনার জেরে নিজের বাড়ির সামনে বিজেপি দুষ্কৃতীদের হাতে আক্রান্ত হয় বলে অভিযোগ তৃণমূল কংগ্রেসের।

প্রথমে তাকে কাটোয়া হসপিটালে ভর্তি করা হয় এরপর অবস্থার অবনতি হলে বর্ধমান মেডিকেল কলেজ পাঠানো হয়। বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

কার্যতঃ অবিলম্বে দোষীদের চিহ্নিত করে কঠোর শাস্তি দিতে হবে বলে দাবী করেছেন তৃণমূলের নেতৃত্বরা ।

পুলিশ সূত্রে খবর এখনো পর্যন্ত ছয় জনকে আটক করা হয়েছে বাকিদের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ।

মৃতের পরিবার থেকে ২৬ জনের নামে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে থানায়।


আজ মঙ্গলকোটে আসেন পুলিশ সুপার ভাস্কর মুখার্জি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here