সোনারপুরের হরিনাভিতে বিজেপির পার্টি অফিস উদ্বোধনকে কেন্দ্র করে বিজেপির দুই পক্ষের মধ্যে তুমুল হাতাহাতি বাধে।


দক্ষিণ 24 পরগনা সোনারপুর নতুনভাবে বিজেপির পার্টি অফিস উদ্বোধন সময় নব্য বিজেপি ও পুরাতন বিজেপি কর্মীদের চলে ব্যাপক হাতাহাতি।

সেই কার্যালয়ের উদ্বোধন করতে আছে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

ঘটনার আকস্মিকতায় হতবাক হন তিনিও। পরে দলীয় কর্মীদের বার্তা দেন বিজেপির বিশৃঙ্খলা বরদাস্ত করা হবে না।

ঘটনাস্থলে সোনারপুর থানার পুলিশ পৌঁছনোয় পর পরিস্থিতি কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আসে।

পার্টি অফিসের ভিতরেই চলে যান দিলীপ ঘোষ ও জেলা সভাপতি সুদীপ দাস।

বাইরে প্রচুর অনুগামীরা ভিড় বাড়াতে থাকেন। পরে পার্টি অফিসের মধ্যেই তালা দিয়ে একপক্ষকে থামানো হয় ।

ঘটনার সূত্রপাত সোনারপুর দক্ষিণ বিধানসভা এলাকায় বিজেপি নতুন নির্বাচনী কার্যালয় উদ্বোধন করতে আসেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

ততক্ষণে এলাকায় ভিড় জমিয়েছেন দলের বহু কর্মী-সমর্থকরা। শেষপর্যন্ত দরজায় ফিতে কেটে দিলীপ ঘোষ যখন কার্যালয়ে ভিতরে ঢোকেন।

তখনই ঘটে বিপত্তি শুরু হয়।

বিজেপি সূ্ত্রে খবর, রাজ্য সভাপতি সঙ্গে নতুন কার্যালয়ে কে আগে ঢুকবে, তা নিয়ে বিজেপির নব্য ও পুরাতন গোষ্ঠীর মধ্যে ঝামেলা শুরু হয়ে যায়।

সেই ঝামেলাই হাতাহাতি, এমনকী মারামারিতে গড়ায়। দুই পক্ষে বুঝিয়ে সুঝিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করা হয়। কিন্তু তাতে লাভ হয়নি বিশেষ।

পরিস্থিতি এতটাই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে, যে দীর্ঘক্ষণ পার্টি অফিসের দরজায় তালা ঝুলিয়ে রাখতে হয়। ঘটনাস্থলে পৌঁছয় সোনারপুর থানার পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here