Babu Master resigned from his post

নিজস্ব সংবাদদাতা:  একে একে নিভিছে দেউটি। শুক্রবার উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলা পরিষদে তৃণমূল শিবিরে নতুন করে ভাঙ্গনের ইঙ্গিত ।

 

খাদ্য কর্মাধ্যক্ষ রতন ঘোষ পদত্যাগ করে বিজেপিতে যাওয়ার পরে উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলা পরিষদের ক্রীড়া কর্মাধ্যক্ষ ও শিক্ষা, তথ্য- সংস্কৃতির দায়িত্বে থাকা বাবু মাস্টার পদত্যাগ করলেন নিজের পদ থেকে ।

 

জেলার বসিরহাট মহকুমার হাসনাবাদ এলাকার দোর্দন্ডপ্রতাপশালী নেতা ফিরোজ কামাল গাজী ওরফে বাবু মাস্টার দলের বিরুদ্ধে বেঁকে বসেছিলেন আগেই। শুক্রবার তিনি জেলা পরিষদে সভাধিপতির কার্যালয়ে নিজের পদত্যাগপত্র জমা দিলেন ।

 

নতুন কোন দলে যোগদান করছেন সে প্রসঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, সব পথ খোলা থাকলেও ডানপন্থী পথেই হাঁটবেন অর্থাৎ ইঙ্গিত বিজেপিতে যোগদানের । নাম না করে বাবু মাস্টার বলেছেন, তৃণমূলের জেলা পরিষদে জনৈক প্রভাবশালী নেতার অঙ্গুলিহেলনে সবকিছু চলছে , জেলা পরিষদে দম বন্ধকরা পরিবেশ।

 

তাঁর দাবী, “সম্মানের সঙ্গে কাজ করা যাচ্ছিল না, দল মর্যাদা দিচ্ছিল না “। উনিশ তারিখে বিজেপির মঞ্চে তাঁকে দেখা যাওয়ার সম্ভাবনা উড়িয়ে না দিয়ে তিনি বলেন, সময় আসুক -সব দেখতে পাবেন । অর্থাৎ সমানেই ভাঙ্গন চলছে ।

 

বাবু মাস্টার তৃণমূল থেকে সরে যাওয়ার বিষয়টি অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ কারণ বাবু মাস্টার জেলার হাসনাবাদ সহ বসিরহাট মহকুমার বিস্তীর্ণ অঞ্চলের ভোট মেসিনারি নিয়ন্ত্রণ করে থাকেন । তৃণমূল নেতৃত্বের কপালে ভাঁজ ফেলতে পারে এই বিষয়টি যে তৃণমূল দল ভাঙছে শুধু নেতাদের পদত্যাগের মধ্যে দিয়েই নয়, ভোটিং মেশিনরী সামলানোর প্রভাবশালী লোকরাও সরছেন দল থেকে ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here